শরীর সুস্থ রাখার সহজ ৭ টি উপায়

শরীর সুস্থ রাখার সহজ ৭ টি উপায়

Table of Contents

শরীর সুস্থ রাখার জন্য আমরা অনেক কিছুই করে থাকি। সবচেয়ে ভালো বিষয়গুলো নিয়েই আমাদের আজকের আজকের আর্টিকেলটি। আশা করি সকল বিষয়গুলো সহজেই বুঝতে পারবেন।

 

শরীর সুস্থ রাখতে কে না চায়। শরীর সুস্থ রাখার সহজ ৭ টি উপায় জানলে আমরা অনেকেই শরীর সুস্থ রাখার চেষ্টা করতে পারবো।

 

আমাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য কিছু নিয়ম মেনে চলা অনেক জরুরী। আমি এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদেরকে শারীরিক সুস্থতার জন্য সহজসাধ্য ৭টি উপায় আলোচনা করবো।

বর্তমানে আমাদের শরীরে বিভিন্ন রকমের রোগ হয়ে থাকে। আমরা অনেক সহজেই দূর করতে পারি। সামান্য  কিছু নিয়ম শারীরিক রোগ থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করে।

শরীর সুস্থ
শরীর সুস্থ রাখার সহজ ৭ টি উপায়

শরীর সুস্থ রাখার সহজ ৭ টি উপায়

পৃথিবীর সবচেয়ে বিশ্বস্ত ও সুস্থ জাতির মধ্যে জাপান অন্যতম। জাপানীরা শারীরিক সুস্থতার জন্য অনেক নিয়ম মেনে চলে।

 

তারা প্রতিদিন শারীরিক ব্যায়াম ছাড়াও অনেক কাজ করে থাকে। পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে গড় আয়ু বেশি জাপানিদের। আপনি যদি গুগলের সার্চ করেন পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি গড় আয়ু কোন দেশের ? 

 

উত্তরের গুগল আপনাকে জাপানের নাম বলবে। আসলে ও জাপানিরা দীর্ঘদিন বেঁচে থাকে তাদের খাদ্যাভ্যাস ও নিয়ম শৃংখলার মাধ্যমে।

 

জাপানিরা তাদের টেকনোলজি বাইরের দেশে রপ্তানি করলেও নিজদেশের খাদ্যগুলো নিজের দেশে রেখে দেয়। কারণ তারা নিজের দেশের খাদ্যগুলোকে অনেক বেশি বিশ্বাস করে।

 

আরো পড়ুন >> উচ্চরক্ত চাপের রোগীদের খাবার ও যত্ন সম্পর্কে জানুন।

 

আরো পড়ুন >> সফল ব্যক্তিদের সকালের রুটিন কেমন হয়।

আমাদের মতো দেশের মানুষেরা সবচেয়ে বেশি রোগে আক্রান্ত হয় খাবারের কারণে এবং শারীরিক ব্যায়াম করার কারণে।

 

প্রতিবছর ডাক্তারদের গবেষণায় দেখা যায় যে খাবারের কারণে আমাদের দেশে অনেক মানুষ আক্রান্ত হয়ে থাকে বিভিন্ন রোগে।

 

তাই আমি বলবো শারীরিক সুস্থতার জন্য ভেজাল মুক্ত খাবার যেমন জরুরি তেমনি জরুরী শারীরিক ব্যায়াম করার। এছাড়াও আরো কিছু নিয়ম মেনে চললে আমরা শারীরিকভাবে অনেক সুস্থ থাকতে পারবো। নিয়মগুলো হলঃ

(১) সবজি জাতীয় খাবার বেশি খাওয়া

 

এক গবেষণায় দেখা গেছে যে,  জাতীয় খাবার মানুষ বেশি খেলে মানুষ অনেক বেশি সুস্থ থাকতে পারে।

 

আমেরিকার গবেষণায় সপ্তাহে ৩০ রকমের সবজি খাওয়ার কথা বলা হয়েছে।  আমাদের দেশে সবজি অনেক সহজেই পাওয়া যায়।

 

তাই এই সবজি খাওয়ার চেষ্টা করা উচিত আমাদের নিয়মিত। রঙিন শাক সবজিতে বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন থাকে যা আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী।

 

তাই ডাক্তাররা রঙিন সবজি খেতে বেশি বলেন। নিয়মিত সবজি খেলে আমাদের শরীর যেমন সুস্থ থাকে তেমনি আমাদের মন ভালো থাকে। প্রতিদিন খাবারের তালিকায় সবজি জাতীয় খাবার রাখা অনেক জরুরী। 

 

আরো পড়ুন >> বর্তমানে টেনিস খেলার ৫টি প্রয়োজনীয়তা জেনে রাখুন

 

লাল শাক,  পালং শাক,  পুঁইশাক সহ আরো নানা রকমের সবজি পাওয়া যায়। শহরের বাজারগুলোতে প্রতিদিন সকালে অনেক রকমের সবজি পাওয়া যায়। শারীরিক ব্যায়াম করার সাথে সবজি গুলো কিনে নিয়ে বাসায় যায়।

 

যদিও সকল পরিবারের পক্ষে এ রকম সবজি পাওয়া সম্ভব হয়না তারপরও যতটুকু সম্ভব সবজি জাতীয় খাবার বেশি খাওয়া উচিত।

(২) প্রয়োজনীয় পরিমাণ পানি পান করা

 

এক গবেষণায় দেখা গেছে যে আমাদের শরীরের বিভিন্ন রোগের অন্যতম কারণ হলো পানি কম পান করা।

 

প্রতিদিন আমাদের শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় পানি পান করা অনেক জরুরী। একজন সুস্থ মানুষের জন্য

 

প্রতিদিন কমপক্ষে ৬ লিটার পানি পান করা প্রয়োজন। প্রয়োজনীয় পানি আমাদের শরীর থেকে দূষিত পদার্থ বের করতে সাহায্য করে।

ডাক্তাররা শারীরিক সুস্থতার জন্য প্রয়োজনীয় পরিমাণে পানি পান করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। 

 

শারীরিক সুস্থতা ছাড়াও পানি পানের উপকারিতা রয়েছে। প্রয়োজনীয় পরিমাণ পানি আমাদের শরীরে অক্সিজেন সরবরাহ করতে সাহায্য করে।

 

তাই আমাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য নিয়মিত প্রয়োজনীয় পরিমাণ পানি পান করা অনেক জরুরী।

(৩)  ব্যায়াম করা

 

শারীরিক সুস্থতার অন্যতম একটা মাধ্যম করা হয় ব্যায়াম করাকে। ব্যায়াম করার মাধ্যমে আমরা আমাদের শরীরকে অনেক সুস্থ রাখতে পারি।

 

২০২০ সালের গবেষণায় দেখা যায় যে ইউটিউব এবং গুগোল এ সার্চ করার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ছিল ব্যায়াম করা এবং

 

কিভাবে শরীর সুস্থ রাখা যায় এসব তথ্য নিয়ে।  বিভিন্ন প্রকার ইউটিউব চ্যানেল তৈরি হয়েছে শারীরিক ব্যায়াম করার জন্য। 

অনলাইনের মাধ্যমেও আমরা শারীরিক ব্যায়াম এর ট্রেনিং করতে পারি। অনেক সময় দেখা যায় যে ব্যায়াম করার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি হতে থাকে না।

 

যন্ত্রপাতি এছাড়াও শারীরিক ব্যায়াম করা যায় এসব বিষয় অনলাইনে বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে দেখানো হয়েছে।

 

ডাক্তাররা মনে করেন যে নিয়মিত শারীরিক ব্যায়াম আমাদের শরীর যেমন সুস্থ রাখে তেমনি আমাদের মধ্যে রাখে প্রফুল্ল।

(৪) পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমানো

 

প্রয়োজনীয় পরিমাণে ঘুমান শরীর সুস্থ রাখার জন্য অনেক জরুরি একটা উপাদান।

 

আমরা অনেক সময় কাজের মাধ্যমে ব্যস্ত থাকি কিন্তু ঘুমানোর প্রতি বেশি খেয়াল রাখি না। গবেষকরা মনে করেন যে প্রয়োজনীয় পরিমাণে ঘুমানো আমাদের শরীর ভালো রাখার জন্য অনেকাংশে দায়ী।

 

রাত্রের কিছু অংশে ঘুমানো আমাদের শরীর সুস্থ রাখার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমেরিকার একদল গবেষক মনে করেন যে, বর্তমান সময়ে আমাদের শারীরিক অসুস্থতার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমানোর অভাব অন্যতম কারণ।

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়া এবং সকাল সকাল ঘুম থেকে ওঠা এবং সকালের কিছু সময় শারীরিক ব্যায়াম করা শরীর সুস্থ রাখার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

 

বর্তমান সময়ে আমরা বেশিরভাগ সময় রাত্রে জাগা থাকি এবং দিনের বেলায় ঘুমায়।

 

আমেরিকার একদল গবেষক এই অভ্যাসকে  আমাদের শরীরের জন্য অনেক ক্ষতিকর বলে মনে করেন। তাই আমরা শরীর সুস্থ রাখার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমানোর অভ্যাস করবো। 

(৫) নিজের মনের ইচ্ছাকে গুরুত্ব দেওয়া

 

আমরা অনেক সময় নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে অনেক কাজ করে থাকি। যা আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

 

অনেক সময় দেখা যায় যে আমরা নিজেদের পিকচার বিরুদ্ধে গিয়ে কাজ করি যেটার কারণে আমরা নিয়মিত শারীরিক অসুস্থতার সম্মুখীন হই।

 

আমাদের দেশের যুবসমাজ তাদের নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী কাজ করতে পারে না অনেক সময়। যার ফলে তাদের একটু বয়স বেশি হলে শারীরিক বিভিন্ন প্রকার সমস্যা দেখা দেয়।

(৬) পছন্দের কোন কাজ বা বস্তু রাখা 

 

আমরা অনেকেই এই কাজটা করে থাকি। অনেকেই বেড়াল পছন্দ করে আবার অনেকেই আছে কুকুর পছন্দ করে।

 

অনেকেই বা আবার পাখি যেমন, কবুতর পছন্দ করে থাকে। এসব পোষ্য প্রাণী আমাদের মনকে অনেক সময় ভালো রাখতে সাহায্য করে।

 

আমরা নিজেরা যখন মন খারাপ রাখি বা আমাদের মন যখন খারাপ থাকে তখন এসব পোষ্য প্রাণীর সাথে সময় কাটালে মূহূত্বেই আমাদের মন ভালো হয়ে যায়।

 

এই গুণটা আমাদের দেশের মানুষের অনেক আগে থেকেই ছিল। বাড়িতে কোন প্রাণী রেখে তার সাথে কথা বলা বা

 

তাকে নিয়ে কিছুটা সময় ব্যয় করা এসব কাজ আমাদের মনকে অনেক ভালো রাখতে সাহায্য করে। আবার অনেকেই অনেক সুন্দর কোন বস্তুকে কাছে রাখে হতে পারে কোন পেইন্ট বা বই যা আপনার মনকে ভালো রাখতে সহযোগীতা করে।

 

আরো পড়ুন >> করোনায় সৌন্দর্য বাড়ানোর ভীড় জমেছে প্লাস্টিক সার্জারিতে।

 

আরো পড়ুন >> টাকা-পয়সা খরচের আগে জেনে নিন ৫টি বিষয়।

(৭) মন খুলে হাসা 

 

হাসলে আমাদের শরীরের যেই পরিমান উপকার হয় তা বলে বোঝানো যাবে না। ডাক্তাররা বলেন, হাসি এক ধরনের ঔষধ আর নিয়মিত হাসা এক প্রকার ঔষধের মত কাজ করে। আমরা অনেকেই কর্মব্যস্ত থাকি কিন্তু এই সুন্দর ঔষধটার প্রয়োগ কখনই করি না। 

বাইরের দেশের মানুষরা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকমের খেলাধূলা বা মজার সময় কাটানোর জন্য বিভিন্ন মাধ্যমের ব্যবস্থা করে থাকে।

বিশেষ করে তারা নিজেদেরকে আলাদা করে সময় দিয়ে থাকে। আমরা অনেকেই এই কাজটা করি না।

অনেক গবেষকরা বলেন বয়স বেশি হলে নিয়মিত ছোটদের সাথে খেলাধূলা করা উচিত এতে করে আমাদের মন অনেক ভালো থাকে। মন খুলে হাসলে আমাদের হৃদপিন্ডও ভালো বা সুস্থ থাকে।

নিচের ভিডিও লিংকটিতে মোট ৪টি বিষয় বলা হয়েছে। আশা করি ভিডিওটির মাধ্যমে আরও উপকৃত হবেন।

 

আশা করি উপরের ৭টি বিষয় আমরা নিয়মিত মেনে চললে আমাদের শরীর ও মন অনেক ভালো থাকবে।

বিবিসি থেকে তথ্যগুলো সংগ্রহ করা। শরীর সুস্থ থাকলে আমাদের কাজেও ভালো লাগবে আর যে কোন কাজে বিরক্তি আসবে না এতটা সহজে।

আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার মূল্যবান মন্তব্য জানাবেন আশা করি। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে মুল্যবান সময় নিয়ে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য।

 

1 thought on “শরীর সুস্থ রাখার সহজ ৭ টি উপায়”

Leave a Comment