দাঁত রুট ক্যানেল কি ? কিভাবে, কখন ও কেন করতে হয় ?

দাঁত রুট ক্যানেল

দাঁত রুট ক্যানেল নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা

আজকের আর্টিকেলটি মূত আমাদের দাঁতের চিকিৎসা নিয়ে। এখানে আমি দাঁত রুট ক্যানেল কি ? কিভাবে, কখন ও কেন করতে হয় ? এসব বিষয়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। 

আরো পড়ুন >>মনে রাখার ৯টি উপায় জেনে রাখুন     

আমরা ছোট থেকেই যদি দাঁতের নিয়মিত যত্ন করি তাহলে এই ধরনের সমস্যা কম হবে আমাদের।

আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনি বিস্তরিত তথ্য এবং কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর পাবেন আশা করি। এখানে আমার জানা এবং সংগ্রহ করা সকল তথ্য সরবরাহ করার চেষ্টা করবো আমি। 

দাঁত রুট ক্যানেল

দাঁতের রুট ক্যানেল ভিডিও
Searches: 0/mo – CPC: ৳0 – SD: 0
দাঁতের রুট ক্যানেল কেন করা হয়
Searches: 0/mo – CPC: ৳0 – SD: 0
রুট ক্যানেল করতে কয়দিন লাগে
Searches: 0/mo – CPC: ৳0 – SD: 0
রুট ক্যানেল করতে ব্যাথা
Searches: 0/mo – CPC: ৳0 – SD: 0
রুট ক্যানেল ও ক্যাপ খরচ
Searches: 0/mo – CPC: ৳0 – SD: 0
রুট ক্যানেল ট্রিটমেন্ট
Searches: 10/mo – CPC: ৳0 – SD: 66
দাঁতের রুট ক্যানেল করতে কত টাকা লাগে
Searches: 0/mo – CPC: ৳0 – SD: 0
দাঁতের রুট ক্যানেল কিভাবে করা হয়
Searches: 30/mo – CPC: ৳0 – SD: 68

অনেকেই মনে করেন রুট ক্যানেল চিকিৎসায় পার্মানেন্ট ফিলিং দেওয়া হয়ে গেলেই সম্পূর্ণ ট্রিটমেন্ট শেষ। আসলে কিন্তু তা না।

কেননা রুট ক্যানেল ট্রিটমেন্টে আমরা দাঁতের ভিতরের সম্পূর্ণ দন্ত মজ্জাটুকু বের করে ফেলে দাঁতটিকে মৃত করে দেই।

ফলে দাঁতটি তার স্বাভাবিক মজবুত ভাব নষ্ট হয়ে যায় এবং দাঁতটি খুব সহজেই ভেঙে যেতে পারে।

তাই আমরা দাঁতের উপর এক ধরনের কৃত্তিম মুকুট বা আবরণ পরাই যাকে ক্রাউন বা ক্যাপ বলে। যা আপনার মৃত দাঁতের স্থায়িত্ব বহু বছর বাড়িয়ে দেয়। দাঁত রুট ক্যানেল নিয়ে সবারই কমবেশি কৌতুহল থাকলে বর্তমানে এটি বেশ জনপ্রিয় একটি বিষয়। 

দাঁত রুট ক্যানেল কি ?

দাঁত রুট ক্যানেল হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে আপনার দাঁতের নার্ভগুলো সরিয়ে নতুন কোন AI বা আর্টিফিশিয়াল পদার্থ দ্বারা পরিপূর্ণ করে দেওয়া। এখানে যাদের দন্ত মজ্জা, স্নায়ু, রক্তনালী ও টিস্যুতে ক্ষয় রয়েছে তাদের এই দাঁত রুট ক্যানেল করতে হয়।

অনেক সময় দাঁতে অতিরিক্ত ব্যাথা বা দাঁতের ক্ষত হওয়ার কারণে খাবার জমে থাকে এবং সেটা থেকে ব্যথা হয়। এরকম কিছু বিষয় থাকলেই কেবল মাত্র আপনি দাঁত রুট ক্যানেল করে নিতে পারেন। 

সহজ কথায় যদি আমি বলি তাহলে বলতে হয় যে, দাঁত সুন্দর মত পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে রাখার জন্য বিশেষ ধরনের পদ্ধতিকেই মূলত দাঁত রুট ক্যানেল পদ্ধতি বা দাঁত রুট ক্যানেল বলা হয়। 

দাঁতে ক্রাউন কিভাবে করা হয় ?

বর্তমানে ক্রাউন ম্যাটেরিয়াল হিসেবে সবচেয়ে বহুল ব্যবহৃত হয় পোরসেলিন ফিউসড মেটাল বা সিরামিক।

রুট ক্যানেলের পর আপনার দাঁতটিকে সঠিক আকৃতিতে কেটে নির্দিষ্ট আকার দেওয়া হয়।

তারপর আপনার দাঁতের রঙের সাথে রঙ নির্ধারণ করা হয়।

তারপর দাঁতটির সঠিক ছাপ নিয়ে সেটা ডেন্টাল ল্যাব থেকে ওই আকৃতির ও নির্ধারিত রঙের ক্যাপ বানানো হয়। যা ওই দাঁতের উপর বসিয়ে বিশেষ ধরনের ডেন্টাল ফিল্লিং দিয়ে আটকিয়ে দেওয়া হয়।

যদি আপনার ডেন্টিস্ট মনে করে আপনার দাঁতের উপরের অংশ অনেক বেশী ভাঙ্গা বা দাঁত অনেক দুর্বল সেক্ষেত্রে অনেক সময় দাঁতের গোঁড়ায় একটি মেটালের খুঁটি বসিয়েও ক্রাউন করা হয়। একে পোস্ট ক্রাউন বলে। এতে দাঁতটি আরও মজবুত ও দীর্ঘস্থায়ী হয়।

দাঁত রুট ক্যানেল নিয়ে কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর

দাঁত অমূল্য একটি সম্পদ। আমরা অনেক সময় এই দাঁতের যত্ন কম করি। আর যত্ন না করার বা কম করার কারণে অনেকেই দাঁতের সমস্যায় পড়ে থাকেন নিয়মিত। একটা নির্দিষ্ট বয়স হয়ে গেলে আমরা এই দাঁত নিয়ে অনেক বেশি সমস্যায পড়ে থাকি। 

এ পর্যায়ে আমি দাঁতের এই সমস্যা নিয়ে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর দিয়ে দেবো। উত্তর দিয়েছেন দেশের খ্যাতিমান একজন দন্ত চিকিৎসক। যার নাম ডেন্টিষ্ট মোঃ নুর হোসেন। তিনি নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দিয়েছেন সুন্দর করে। 

প্রশ্ন : রুট ক্যানেল আসলে কী ?

উত্তর : দাঁত যে মাড়ির সঙ্গে লেগে থাকে, সেটি একটি শেকড়ের সঙ্গে লেগে থাকে। দাঁতের মাড়ির শেকড়ের একটি ক্যানেল থাকে। ওই ক্যানেলের যে সংক্রমণ বা প্রদাহ থাকে, দাঁতের ভেতরে যে পাল্প টিস্যু বা দন্ত্যমজ্জা বলি, সেটার চিকিৎসা করাকেই সাধারণত রুট ক্যানেল বলা হয়।

প্রশ্ন : রুট ক্যানেলের প্রয়োজনীয়তা কখন হয় ? কখন আপনারা এটি করতে পরামর্শ দিয়ে থাকেন ?

উত্তর : সাধারণত ডেন্টাল ক্যারিজ হয়ে ওটা প্রথমে অ্যানামেলকে ক্ষয় করে। এর পর ডেনটিন ক্ষয় করে। যখন পাল্প টিস্যুতে এই ক্ষয় চলে যায়, রোগীর অসম্ভব ব্যথা হয়।

এই ব্যথার কারণে যখন আমাদের কাছে রোগী আসে, তখন আমরা রুট ক্যানেল করি। এ ছাড়া অনেক সময় সড়ক দুর্ঘটনা হয়ে কোনো সমস্যা হলে বা দাঁতে যেকোনো ধরনের আঘাত পেলে, তখন আমরা দাঁতের রুট ক্যানেল করি।

প্রশ্ন : রুট ক্যানেল করার আগে তার পূর্ববর্তী অবস্থাটা কীভাবে মূল্যায়ন করেন ?

উত্তর : আসলে সব সময় দাঁত ব্যথা হলেই যে রুট ক্যানেল করব, বিষয়টি সেটি নয়। অনেক সময় দেখা যায়, দাঁতের কিছু ক্ষয় রোগ থাকে, দাঁতের স্পর্শকাতরতা থাকে। তখন আমরা আর রুট ক্যানেল করার পরামর্শ দিই না।

রুট ক্যানেল করার জন্য কিছু বিষয় লাগে, যেমন : পাল্প টিস্যু বা নার্ভ পর্যন্ত সমস্যা চলে যেতে হবে। যখন এই পাল্প কিংবা মজ্জাতে সমস্যা ছড়িয়ে পড়ে, তখন দাঁতে অসম্ভব ব্যথা হয়।

ব্যথায় রোগী ঘুম থেকে উঠে যায়। রাতে অসম্ভব ব্যথা করে। তখন আমরা রোগীকে বলি, অবশ্যই এটি রুট ক্যানেল করতে হবে।

প্রশ্ন : রুট ক্যানেল করার আগে কোনো এক্স-রে বা পরীক্ষা করার দরকার আছে কি ?

উত্তর : অবশ্যই রয়েছে। রুট ক্যানেল করার আগে দাঁতের কী অবস্থা, সেটি দেখি। হয়তো দাঁতের এমনই খারাপ অবস্থা যে দাঁত নড়ে গেছে, ওটা পরবর্তীকালে ঠিক করা সম্ভব নয়। তখন এক্স-রে করার পরামর্শ দিই। দাঁতের সার্বিক অবস্থা দেখে চিকিৎসা দিই।

প্রশ্ন : রুট ক্যানেল করার কথা শুনলে রোগীরা ভয় পেয়ে যায়। এর পেছনে কারণ কী ?

উত্তর : আসলে দু-তিনটি কারণ রয়েছে। প্রথম এবং প্রধান কারণ হচ্ছে ব্যথা। রোগীরা ভাবেন, দাঁতে এত ব্যথা পাচ্ছেন, চিকিৎসকের কাছে গেলে হয়তো ব্যথা আরো বেড়ে যাবে। তবে এখন অনেক অ্যানেসথেশিয়া রয়েছে, যেগুলো রুট ক্যানেল করার আগে আমরা দিয়ে নিই।

এতে ব্যথামুক্তভাবে রুট ক্যানেল করা যায়। আসলে দেখা যায়, রুট ক্যানেলের চিকিৎসাটি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বা সদ্য পাস করার চিকিৎসকরাই করে থাকেন।

এ ছাড়া এই চিকিৎসায় অনেক সিটিং লাগে এবং একটু ব্যয়সাপেক্ষ চিকিৎসা এটি। সবকিছু চিন্তা করে রুট ক্যানেল চিকিৎসাকে রোগীরা হয়তো ভয়ংকর ভাবেন।

– ডেন্টিষ্ট মোঃ নুর হোসেন

সম্রাট ডেন্টাল কেয়ার

প্রয়োজনে- 01777403460

দাঁত রুট ক্যানেল নিয়ে উপরের প্রশ্নগুলো এবং এগুলোর উত্তর জেনে রাখা অনেক জরুরী একটি বিষয়। 

আমরা অনেকেই আছি যারা জানি না এই প্রশ্নগুলো এবং এসব প্রশ্নের উত্তর না জানার কারণে অনেক সময় আমাদের দাঁতের যত্ন ঠিকমত নেওয়া হয়ে উঠে না। আশা করবো আর্টিকেলটি পড়লে আপনি সহজেই এসব প্রশ্ন এবং উত্তর বুঝতে পারবেন। 

দাঁত রুট ক্যানেল করলে ব্যাথা হয় কেন ? 

ব্যাথা হওয়ার অন্যতম কারণ হলো ঠিকমত দাঁত রুট ক্যানেল না হওয়া। অনেক সময় খাবার জমে থাকা বা কোন ছিদ্র থাকলে ব্যাথা থাকতে পারে। তবে রুট ক্যানেল করার কয়েকদিন মানে ২ থেকে ৩ দিন অথবা ৭ দিন পর্যন্ত ব্যাথ্যা থাকে তাহলে সেটা নরমাল ব্যাথা ধরা হয়। 

এর বেশি দিন ধরে ব্যাথা হলেই কেবল মাত্র আমাদের দাঁতের চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া। দাঁত রুট ক্যানেল করার সময় অনেক ক্ষেত্রেই কিছু অসাবধনতার কারণেও অনেক ক্ষেত্রে এমন হতে পারে। তাই আমাদের এই বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। 

দাঁত রুট ক্যানেল কিভাবে করবেন ? 

দাঁত রুট ক্যানেল করার জন্য আপনাকে অবশ্যই ভালো একজন দন্ত চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। এবং আপনার দাঁতের সমস্যাগুলো যদি দেখে ডাক্তার মনে করেন যে, আপনার দাঁত রুট ক্যানেল করতে হবে। 

কেবল মাত্র আপনি তখনই এই কাজটা করে নিতে পারবেন। তবে অবশ্যই একজন প্রফেশনাল ডাক্তারের কাছে গিয়ে আপনাকে আগে দাঁত দেখাতে হবে। তাছাড়া আপনি সঠিক তথ্য নাও পেতে পারেন। 

দাঁত রুট ক্যানেল আর্টিকেলটি প্রথম প্রকাশিত হয় ১২ই আগস্ট ২০২২ সাল 

About ডিজিটাল আইটি সেবা

ডিজিটাল আইটি সেবা অনলাইন ভিত্তিক সেবা মূলক প্রতিষ্টান। এখানে অনলাইনে আয়, ডিজিটাল শিক্ষা, ফেইসবুক মার্কেটিং সহ আরও অনেক কাজের ধারণা প্রদান করা হয়। এটি দেশের আর্থিক সামাজিক অবস্থার উন্নতির জন্য কাজ করে থাকে।

View all posts by ডিজিটাল আইটি সেবা →

Leave a Reply

Your email address will not be published.