২০২১ সালের HSC ফলাফল যেভাবে নির্ধাণ করা হলো

এইচএসসি ২০২০ অটো পাশ দেওয়া হয়। আর এদের ফলাফল নির্ধারনের জন্য বিশেষ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। ২০২০ সালের ব্যাচ হলেও এদের ফলাফল ঘোষনা করতে বেশ খানিকটা সময় অতিক্রম করতে হয়। বিগত বছরে এভাবে ফলাফল দেওয়ার পদ্ধতি না থাকলেও এবার করোনার কারণে বাংলাদেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয় অটো পাশের মাধ্যমে ফলাফল ঘোষনা করার সিদ্ধান্ত নেয়।


২০২১ সালের HSC ফলাফল যেভাবে নির্ধাণ করা হলো


প্রতিটি বিষয়েই আলাদা করে নাম্বার দেওয়া হয়েছে। আর আগের বছরগুলোর মতই ট্রান্সক্রিপ্ট দেখাবে এবং প্রত্যেকটা বিষয়ে তার গ্রেডসহ নাম্বার উল্লেখ থাকবে। যে কারণে তাদের কোন সমস্যা হবে না বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে বা বিভিন্ন জায়গায় আবেদন করতে। সাধারণ বিভিন্ন প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় যেমন, বুয়েট বা রুয়েট এসব বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন বিষয়ের নাম্বার দেখে ভর্তি ফরর্ম বিতরণ করে থাকে আর এবার সেই কারণেই প্রত্যেকটা ছাত্র-ছাত্রীর নাম্বারের বিষয়টা মাথায় রেখেই রেজাল্ট তৈরি করা হয়েছে। 


ইতিহাসে এটাই প্রথম সারা দেশে ১০০% পাস নির্ধারিত হয়েছে এই বছরে। বিগত বছরগুলো এইচএসসিতে কখনও এমন ফলাফল হয় নাই। অটো পাসের কল্যানে বাংলাদেশের সকল শিক্ষার্থীই পাস করেছে এবং বিগত বছরের তুলনায় এই বছরে অনেক বেশি A+ পেয়েছে। 


যেখানে নির্ধারিত হয়েছে এইচএসসি ২০২১ এর ফলাফল 

শিক্ষাবোর্ড বলেছে যে, এসএসসি থেকে ৭৫% এবং জেএসসি থেকে ২৫% নিয়ে মোট ১০০% করে ফলাফল ঘোষনার কাজ করা হয়েছে। আর এতে করে যাদের জেএসসি ও এসএসসিতে ফলাফল ভালো ছিল তাদের ফলাফলটা এইচএসসিতেও ভালো এসেছে। উচ্চশিক্ষায় ভর্তির ক্ষেত্রে এসব নাম্বার অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেও জানিয়েছে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বি. দ্র. পোস্টটি মূলত ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলকে কেন্দ্র করে।

Leave a Comment