সর্বাধিক আয় করা দেশীয় কম্পানির নামগুলো জেনে নিন

বাংলাদেশে ব্যাক্তিমালিকানাধীন অনেকগুলো প্রতিষ্ঠান বা কম্পানি আছে যারা আজকে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে অনেক দুর এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তবে গ্রুপ অফ কোম্পানিগুলো অনেক ভালো করছে। এর আসল কারণ হলো তাদের পরীধিটা অনেক বড়। আগে জেনে নেওয়া যাক গ্রুপ অফ কম্পানি কি বা কাকে বলে ? 

পৃথিবীর সেরা ব্যবসায়ীর জীবন ও কাজ সম্পর্কে জেনে নিন।

Group Of Company


একটা গ্রুপ অফ কম্পানির সেই কম্পানিকেই বলে যেটা অনেকগুলো শাখা থাকবে। যেমন, ধরুন একটা কম্পানি একটা আইটি প্রতিষ্ঠান আছে, ট্রান্সপোর্ট বিজনেস আছে, নিউজপেপারের বিজনেস আছে, আবার শেয়ার বাজারেও বিজনেস আছে আবার পোশাক নিয়েও কাজ করে। এমন অনেকগুলো ছোট ছোট কম্পানির মালিক যদি একটা হয় তখন তাকে গ্রুপ অফ কম্পানি বলে। আমাদের দেশে অনেকগুলো গ্রুপ অফ কম্পানি আছে যাদের একটা ছোট কম্পানিতে লস হলেও আরেকটা লাভ হয় এবং সবগুলো মিলে সেই গ্রুপ অফ কম্পানিটা টিকে থাকে। কোন ব্যাক্তির একটা কম্পানি থাকলে সেই কম্পানি ভালো সময় বা খারাপ সময় থাকে আর সেই খারাপ সময়ে অনেক সময় কম্পানিটি হারিয়ে যায়। আর এই কারণেই অনেক ব্যবসায়ী গ্রুপ অফ কম্পানির দিকে অনেক বেশি আগ্রহী। 


আগামীর বাংলাদেশ সম্পর্কে জানুন

(১) সিটি গ্রুপ বা City Group 

১৯৭২ সালে ফজলুর রহমান সিটি গ্রুপ অফ কম্পানিটি প্রতিষ্টা করেন। শুরুর দিকে সরিষার তেল দিয়ে শুরু কররেও ১৯৯৫ সালে তীর ব্যান্ড এর তীর আটা, ময়সা ও সুজি দিয়ে অনেক জনপ্রিয়তা পায়। এছাড়াও আছে জীবন পানি কম্পানি, বেঙ্গল টি, সান তেল। তবে 

Consumer Good

Steel 

Printing & Packaging

Shipping 

Power & Energy 

Insurance 

Media 

গ্রুপটি ওযেব সাইট অনুসারে প্রায ৪০টি ছোট ছোট কম্পানি আছে এই গ্রুপ অফ কম্পানি মালিকানাধীন। এছাড়ও আর মালিকানাধীন আছে। 

City oil Mill

City Navigations 

City Seed Crushing Industries 

City Tea Estate 

City Sugar Industries 

City Economic Zone 

এছাড়াও নারায়নগজ্ঞ জেলায় ৭৮ এর জমিতে সিটি গ্রুপে ইকোনোমিক জোনের কার্যক্রম শুরু হয়। তবে এই গ্রুপটি মুন্সিগঞ্জ জেলাতেও আরেকটা ইকোনোমিক জোন তৈরি করার অনুমতি পায় এই কম্পানিটি। বিশ্ব ব্যাংকের হিসেবে এই কম্পানিটি বছরে ৮,৫০০ কোটি টাকা আয় করে এবং সিটি গ্রুপে ওয়েব সাইট অনুসারে ১৫,০০০ এর বেশি কর্মী কাজ করে এই কম্পানিটিতে। 

(২) United Group বা ইউনাইটেড গ্রুপ 

১৯৭৮ সালে কযেকজন বন্ধু মিলে তৈরি করে এই কম্পানিটি। জনাব হাসান মাহবুব রাজা এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক। দেশের Electricity, Real Estate, Oil Tanker, Health, Education, Retail, terminal & shipping, Textile, Lubricant, Polymer, Tea Production ইত্যাদি ব্যবসার সাথে জড়িত আছে এই গ্রুপটি। এই গ্রুপ অফ কম্পানির আছে আরও 

United Engineering & Power Service 

United Power Generation & Distribution 

Khulna Power Company 

United securities 

United Property solutions 

Comilla spinning Mill

United Lube Oil 

Moulvi Tea Estate 

দেশের অন্যতম রিটেল শপ Unimart এবং Chef’s Table অন্যতম প্রতিষ্ঠান আছে এই গ্রুপ অফ কম্পানিটির। প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট অনুসারে এই কম্পানিতে ৭,৮০০ জন কর্মী কাজ করে। এবং এই গ্রুপ অফ কম্পানির বছরে আয় ৮,৫০০ কোটি টাকা। 

(৩) PHP Family বা PHP গ্রুপ 

১৯৬৯ সালে আলহাজ্ব সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান এর হাত ধরে তেরি হয় এই গ্রুপ অফ কম্পানিটি। জাহাজ বিজনেস, ইলেকট্রানিক্স কারখানা এবং ১৯৮৬ সারে ঢেউটিন নামের ছোট কম্পানি প্রতিষ্টা করেন। এই কম্পানির বিদ্যুৎ উৎপাদন, শিপিং, স্টিল, মৎস, রাবার উৎপাদন, তেল পরিশোধন, কৃষি পণ্য, হিমাগার, জাহাজ নির্মান শিল্প সহ আরও কিছু ছোট ছোট কম্পানি আছে এই গ্রুপ অফ কম্পানির। গ্রুপটির ওযেব সাইট থেকে জানা যায প্রায় ৩০টিরও বেশি ছোট ছোট কম্পানি নিয়ে তৈরি হয়েছে এই কম্পানিটি। বিশ্ব ব্যাংকের হিসেব অনুসারে এই কম্পানির বছরে আয় ৮,৫০ কোটি টাকা। 


ভবিষ্যতে চাকরীর জন্য যেসব দক্ষতা অর্জন করতে হবে জেনে রাখুন।

(৪) প্রান গ্রুপ 

১৯৮১ সারে মেজর জেনারেল আমজাদ খান চৌধুর প্রাণ আর. এফ. এল. গ্রুপ নামের কম্পানিটি প্রতিষ্টা করেন। গ্রুপটি ওযেব সাইট অনুসারে প্রায় ১৪০ দেশে এই কম্পানির পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। 

RFL Plastics 

VISION Electionics 

Regal 

Pran 

ইত্যাদি নামক ছোট ছোট কম্পানি আছে এই গ্রুপ অফ কম্পানির। প্রায় ১ লক্ষ কর্মী কাজ করে এই কম্পানিতে। এই গ্রুপ অফ কম্পানির বছরে আয় ৮,৫০০ কোটি টাকার মত। 


অনলাইনে আয় করার জন্য কিভাবে অনলাইন ব্যবসা করবেন জেনে নিন।

(৫) Partex Group বা পারর্টেক্স গ্রুপ 

১৯৬২ সালে শিল্পপতি এম. এ. হাসেমের হাত ধরে শুরু হয় পারটেক্স গ্রুপের যাত্রা। বর্তমানে এই গ্রুপ অফ কম্পানির আছে 

Food & Beverages 

Furnitures 

Textiles 

Shipping 

Sugar 

Agriculture 

Jute 

Real Estate 

Construction 

Power & energy 

Telecommunication 

IT Sector 

এছাড়াও আছে

Partex Board 

Partex Furnitures 

Partex Builders 

Partex Oil Gas 

Partex Cables 

ইত্যাদি নামে ছোট ছোট কম্পানি আছে এই গ্রুপ অফ কম্পানির। আর গুরুত্বপুর্ণ তথ্য হলো এম. এ. হাসেম City Bank এবং UCB Bank নামে দুইটি ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেন। এই গ্রুপ অফ কম্পানির বছরে আয় ৮,৫০০ কোটি টাকা। 


কেন আপনি ব্যবসা করবেন চাকরী না করে জেনে রাখুন।

(৬) Beximco Group বা বেক্সিমকো গ্রুপ 

১৯৭২ সালে সালমান এফ রহমান ও তার ভাই মিলে প্রতিষ্ঠা করেন এই গ্রুপটি। 

Medicine 

Readymade 

ICT 

Media 

DTH 

Financial Services 

Energy 

Real Estate 

Travel & Tourism 

Ceramic 

সহ আরও কিছু ছোট ছোট কম্পানি আছে এই গ্রুপ অফ কম্পানির। গ্রুপটিতে প্রায় ৭০ হাজারের বেশি কর্মী কাজ করে আর বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য মতে ৮,৫০০ কোটি টাকার মত আয় করে বছরে এই কম্পানিটি। 

(৭)  আকিজ গ্রুপ 

১৯৪০ সালে শেখ আকিজ উদ্দিনের হাত ধরে যাত্রা শুরু আকিজ গ্রুপের। এই গ্রুপের আছে অন্যন্যা গ্রুফ কম্পানির মত আরও অনেক ছোট ছোট কম্পানি। তবে খাদ্য, তামাক, সহ আরও কিছু সফল ব্যবসা পরিচালনা করে যাচ্ছে এই কম্পানিটি। এই গ্রুপ অফ কম্পানির বছরে আয় ৮,৫০০ কোটি টাকা। 

আরও কিছু গ্রুপ অফ কম্পানি আছে আমাদের এই ছোট দেশটিতে যারা এখনও সফলভাবে ব্যবসা পরিচালনা করে যাচ্ছে। আজকের পোস্টটিতে এই ৭টি গ্রুপ অফ কম্পানি নিয়েই আলোচনা করা হলো। আসুন এবার জেনে নেওয়া যাক গ্রুপ অফ কম্পানি ‍সুবিধা কি এবং অসুবিধা কি। 

সুবিধাঃ

(ক) ছোট ছোট একাধিক কম্পানি থাকার কারণে লস হয় না। 
(খ) পরিচালনা করা সহজ হয় ছোট ছোট ভাগে ভাগ করা থাকার কারণে। 
(গ) অনেক নতুন নতুন কাজ করা সহজ হয়। 
(ঘ) অর্থের যোগান পাওয়া সহজ হয়। 
(ঙ) দেশের অনেক শ্রমিক কাজে লাগানো যায়। 
(চ) বিদেশে Branding করা সহজ হয়। 

অসুবিধাঃ

(ক) মানসিক চাপ থাকে বেশি। 

(খ) অনেক সময় ছোট ছোট অনেক কম্পানি লস হয়। 

(গ) নতুন নতুন প্রজেক্ট মানে রিক্স থাকে বেশি। 

সবমিলে বর্তমানে যেসব কম্পানিগুলো মার্কেটে টিকে আছে তাদের মধ্যে বেশিভাগই আছে এই ধরনের গ্রুপ অফ কম্পানিগুলো যারা তাদের ব্যবসায়ীক পরিধীটা আরও অনেক গুনে বৃদ্ধি করছে। আগামী দিনগুলোতে নতুন নতুন ব্যবসা পরিচালনা করার কারণে তারা অনেক বেশি ভূমিকা পালন করতে পারবে। আমাদের দেশে বর্তমানে যেসব কম্পানি অনেক দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে তাদের বেশিভাগই গ্রুপ অফ কম্পানি। এই কম্পানিগুলোতে অনেক সহজেই বিনিয়োগ পাওয়া যায় এবং অনেক সহজেই ব্যবসায় লাভ করা যায় বিধায় অনেকেই এখন বিনিয়োগ করে এই ধরনের কম্পানি তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী দিনে এই ধরনের কম্পানির ভবিষ্যত অনেক ভালো এবং তারা দেশের বৈদেশিক মুদ্রা আয় করতে অনেক বেশি ভূমিকা পালন করে থাকে। 

আর্টিকেলটি কেমন হয়েছে জানাবেন আর কোন বিষয়ে আর্টিকেল পড়তে বা জানতে চান সেটাও কমেন্ট করে জানাবেন চেষ্টা করা হবে সেই সমস্ত বিষয়ে সঠিক তথ্য উপস্থাপন করার। অনেক ধন্যবাদ মূল্যবান সময় নিয়ে আটিকেলটি পড়ার জন্য। 

মানসিক শান্তির অর্জন করা উপায়গুলো জেনে নিন।


কনটেন্ট মার্কেটিং করে কিভাবে আয় করবেন জেনে নিন।


Leave a Comment