নতুন সাইট দ্রুত ইনডেক্স এবং র‍্যাংক করার সহজ উপায় জানুন

ব্লগারে পোস্ট ইনডেক্স করতে হলে কি করতে হবে ? ব্লগারে পোস্ট কিভাবে দ্রুত ইনডেক্স করা যায় ? ব্লগারে পোস্ট কিভাবে দ্রুত র‌্যাংক করানো যায় ? পোস্ট ইনডেক্স করার কার্যকরি উপায় জানুন আর্টিকেলটির মাধ্যমে। ব্লগারে পোস্ট ইনডেক্স নিয়ে আমাদের চিন্তার শেষ নেই। আজকের আর্টিকেলে আমরা জানবো কিভাবে দ্রুত পোস্ট ইনডেক্স করা হয় এবং পোস্ট গুগলে র‌্যাংক করানো যায়। 


নতুন সাইট দ্রুত ইনডেক্স এবং র‍্যাংক করার সহজ উপায় জানুন



দ্রুত ইনডেক্স করার আগে জানতে হবে কেন দ্রুত ইনডেক্স হবে আর কোন কোন ধরনের পোস্ট দ্রুত র‌্যাংক করে সেসব বিষয়। নিচের দ্রুত ইনডেক্স করানোর কিছু পদ্ধতি দেওয়া হলো। 




(১) Keyword রিসার্চ করে পোস্ট করতে হবে

Keyword রিসার্চ করে আপনি যদি পোস্ট করেন তবে সেই পোস্ট অনেক দ্রুত ইনডেক্স হবে। কারণ গুগলে মানুষ কোন ধরনের পোস্ট পড়তে আসে আর কোন ধরনের তথ্য জানতে চায় সেসব বিষয়য় আপনি রিসার্চ করে যদি লিখতে পারেন তবে আপনি অনেক ভালো করতে পারবেন। তাই পোস্ট করার আগে অবশ্যই Keyword  রিসার্চ করার বিষয়টা লক্ষ্য রাখবেন। 


আরো পড়ুন >> Newspeed Premium Theme Download Link
আরো পড়ুন >> Droid Premium Theme Download Link




(২) বেশি শব্দের পোস্ট করা 

আমরা অনেকেই পোস্ট করি শব্দ কতগুলো আছে সেসব বিষয় নজর রাখি না। ধরুন গুগলে একটা পোস্ট আছে বা কনটেন্ট আছে আর সেখানে ১ হাজার শব্দ আছে। আপনি যদি সেই ধরনের পোস্ট ই দ্রুত ইনডেক্স করাতে চান তবে তার চাইতে বেশি শব্দ দিয়ে পোস্ট লিখতে হবে। তার চাইতে কম শব্দ দিয়ে যদি আপনি পোস্ট বা কনটেন্ট পাবলিশ করেন তাহলে আপনি দ্রুত ইনডেক্স করাতে পারবেন না। দ্রুত ইনডেক্স করানোর জন্য বিষয়টা অবশ্যই গুরুত্বসহকারে দেখা উচিত যারা পোস্ট বা কনটেন্ট লিখে থাকেন। 




(৩) নিয়মিত পোস্ট করা

অনেকেই সপ্তাহে ৫ টা পোস্ট করার পর মাসেও আর কোন পোস্ট করে না। আসলে আপনি যদি এই ৫টা পোস্ট ই তিনদিন পরপর একটা করে করতেন তাহলে অনেক ভালো হতো। এজন্যই যেসব সাইটে নিয়মিত পোস্ট করা হয় সেসব সাইটের পোস্ট দ্রুত ইনডেক্স হয়ে থাকে। গুগরের রোবট নিয়মিত ভিজিট করে আপনার সাইটে যদি সে প্রতিদিন নিয়মিত পোস্ট পায় তবে সেটা ইনডেক্স করার জন্য রেডি করবে। আর যদি নিয়মিত পোস্ট না পায়য় মাঝে মাঝে পোস্ট পায় তবে পোস্ট বা কনটেন্ট ইনডেক্স হতে অনেকটা বেশি সময় লাগে। 






(৪) কনটেন্ট ইউনিক করার চেষ্টা করা 

ধরুন আপনি আমার এই পোস্টটাই লিখবেন।তাহলে আমার পোস্ট থেকে বা আমার কনটেন্ট থেকে আপনাকে এমন কিছু শব্দ দিতে হবে যেগুলো আমার সাইটে নাই। আপনি শব্দগুলো নিজে নিজে লিখবেন তাহলেই আমার সাইটের সাথে মিলবে না। কারণ গুগল চায়  নতুন নতুন শব্দ ও নতুন নতুন বাক্য যেন সে মানুষের চাহিদা অনুসারে ভিজিটরদেরকে তা সো করাতে পারে। যেসব রাইটার বা কনটেন্ট রাইটার ইউনিক পোস্ট করে থাকেন তাদের পোস্ট অনেক দ্রুত ইনডেক্স হয়ে থাকে। ইউনিক কনটেন্ট আর যদি সেটা হয় নিয়মিত তাহলে অনেক দ্রুত ইনডেক্স হয়। 




(৫) সাইট নতুন অবস্থায় অনেক বেশি পোস্ট করার চেষ্টা করা

যদি আপনার সাইটটা নতুন হয় তাহলে নিয়মিত সময় করে প্রতিদিনই পোস্ট করার চেষ্টা করুন। এতে করে গুগলের রোবট নিয়মিত আপনার সাইটে পোস্ট বা কনটেন্ট দেখতে পাবে। আর গুগলের রোবট আপনার সাইটের কনটেন্টগুলো দ্রুতই ইনডেক্স করার জন্য রিভিও করবে। নতুন সাইট এমনতেই ইনডেক্স হতে সময় নেয় আর যদি আপনি নিয়মিত পোস্ট করতে পারেন তবে অনেক দ্রুত ইনডেক্স করা সম্ভব। তবে দ্রুত বা নিয়মিত বেশি পোস্ট করতে গিয়ে পোস্ট বা কনটেন্ট ছোট করা যাবে না। পোস্ট এ শব্দ মিনিমাম ১ হাজার করা উচিত। আর নির্দিষ্ট ট্রপিকের উপর পোস্ট করলে সেটি অনেক দ্রুত ইনডেক্স হয়ে থাকে। একই ধরনের পোস্ট একাধিক হলে অবশ্য ভালো হয়। 




(৬) টাইটেল ও ছবি ভালোমত যুক্ত করা 

অনেকেই আছেন পোস্ট বা কনটেন্ট এর টাইটেলের বিষয়টা খেয়াল করেন না। আসলে আমাদের উচিত পোস্ট বা কনটেন্ট এর টাইটেলের সাথে তার সাথে সংযুক্ত করা ছবির প্রতি লক্ষ্য রাখা। টিউটোরিয়াল রিলেটেড কনটেন্ট যদি হয় তবে টিউটোরিয়াল যুক্ত ছবি যুক্ত করতে হবে। আবার টাইটেলে পর্ব থাকলে সেটি উল্লেখ করতে হবে। এই ধরনের পোস্ট বা কনটেন্টগুলো অনেক দ্রুত ইনডেক্স হয়ে থাকে। 





(৭) সংখ্যা বা পয়েন্টযুক্ত কনটেন্ট পাবলিশ করা 

গুগল পয়েন্টযুক্ত কনটেন্টকে অনেক বেশি মূল্যায়ন করে থাকে। তাই চেষ্টা করবেন পয়েন্টযুক্ত কনটেন্ট পাবলিশ করা। পোস্ট এর টাইটেলে সংখ্যা যুক্ত করা অনেক ভালো কারণ গুগল এসব টাইটেলকে গুরুত্ব দেয়। ধরুন আপনি গুগলের সবিধা বর্ণনা করে পোস্ট বা কনটেন্ট লিখবেন তাহলে সেগুলোই পয়েন্ট করে লিখবেন তাহলে সেটিকে গুগল দ্রুত ইনডেক্স করবে। 



পোস্ট র‌্যাংক করার উপায় জানুন এবার সহজেই কিভাবে পোস্ট বা কনটেন্ট র‌্যাংক করানো যায়। 


কনটেন্ট ইনডেক্স করার পর আসবে কনটেন্ট যেন প্রথম পেজে থাকে বা কনটেন্ট যেন র‌্যাংক করে। ইনডেক্স আর র‌্যাংক করানোর পদ্ধতি প্রায় একই রকমের।কিছুটা পার্থক্য থাকলেও মুল বিষয়টা একই। যেমন, 




(১) টাইটেল যুক্ত পোস্ট বড় করা 

বিষয়টা বোঝানোর জন্য একটা উদাহারণ দিচ্ছি। ধরুন “সাইটের র‌্যাংক করার উপায়” এমন টাইটেলে এর আগে একটা পোস্ট আছে। আর সেই কনটেন্টে শব্দ আছে প্রায় ৮০০টির মত। আপনি যদি একই টাইটেল দিয়ে পোস্ট লিখেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই ৮০০ টির বেশি শব্দ যুক্ত করতে হবে। আগের কনটেন্ট এ সেসব কীওয়ার্ড যুক্ত ছিল সেগুলোর চাইতে আরও বেশি কীওয়ার্ড বা ট্যাগ শব্দ যুক্ত করতে হবে। 




(২) টিউটোরিয়াল যুক্ত কনটেন্ট পাবলিশ করা 

সিরিয়াল বা টিউটোরিয়াল যুক্ত কনটেন্ট অনেক দ্রুত র‌্যাংক করে। আপনার সাইটের সকল পোস্টই যে র‌্যাংক করাতে হবে বিষয়টা তেমন নয়। তবে যেসব পোস্ট র‌্যাংক করানোর জন্য লিখবেন সেগুলো অন্য পোস্ট থেকে একটু আলাদা করে লিখবেন। মানে সেসব পোস্ট সাধারণত টিউটোরিয়াল ভিত্তিক করার চেষ্টা করবেন। 







(৩) পয়েন্ট যুক্ত কনটেন্ট পাবলিশ করা

পয়েন্টযুক্ত কনটেন্ট যে শুধু দ্রুত ইনডেক্স হয় বিষয়টা তা নয় অনেক ভালো র‌্যাংকও করে থাকে।তাই অবশ্যই কনটেন্ট লিখার ক্ষেত্রে বিষয়টা ভালো মত খেয়াল করবেন। সংখ্যাযুক্তগুলো গুগলের রোবট ভালোমত চেক করে থাকে আর দ্রুত ইনডেক্স যেমন করে তেমনিন দ্রুত র‌্যাংক করতেও সহযোগীতা হয় এমন ধরনের কনটেন্টগুলো। 






(৪) বড় বড় কনটেন্ট লিখা বা বেশি শব্দ যুুক্ত কনটেন্ট পাবলিশ করা

দ্রুত ইনডেক্স করার জন্য বেশি শব্দযুক্ত পোস্ট করলে সেটি অনেক ভালো র‌্যাংক করতেও কাজে লাগে। সব পোস্ট ইনডেক্স হলেই যে র‌্যাংক করবে বিষয়টা তা নয়। তবে টাইটেলযুক্ত পোস্ট আরও থাকলে আর আপনার পোস্ট বা কনটেন্টে বেশি শব্দ থাকলে সেটি অনেক দ্রুত র‌্যাংক করবে। 




(৫) Keyword রিসার্চ করে কনটেন্ট পাবলিশ করা 

Keyword রিসার্চ করে কনটেন্ট বেশি শব্দ দিয়ে পাবলিশ করলে দ্রুত ইনডেক্স হওয়ার পাশাপাশি দ্রুত র‌্যাংক হয়। অনেকেই Keyword রিসার্চ করতে পারেন না তাদের জন্য কনটেন্ট বড় করে লিখার কোন বিকল্প নেই যদি র‌্যাংক করাতে চান। র‌্যাংক মূলত ভিজিটরের উপর নির্ভর করে। আর আপনি যদি Keyword রিসার্চ করে কনটেন্ট পাবলিশ করেন তাহলে সেটি অবশ্যই র‌্যাংক করবে আশা করা যায়। 







আশা করি উপরের পয়েন্টগুলো সকলের উপকারে আসবে। নতুন সাইট দ্রুত ইনডেক্স এবং র‍্যাংক করার সহজ উপায় সম্পর্কে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে লিখা হয়েছে। অবশ্যই প্রত্যেকটি পয়েন্ট নিজের অভিজ্ঞতা থেকে লিখা ও নিজেই রিসার্চ করে চেক করে নেওয়া হয়েছে। অনেক ধন্যবাদ মূল্যবান সময় নিয়ে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য। 

Leave a Comment