২০২১ সালের ১০টি দক্ষতা সারা জীবন আয়ের ব্যবস্থা করবে

২০১০ সালের দিকেও মানুষ এতটা বেশি চাকরীর দিকে যেতো না এখন যতটা বেশি যাচ্ছে। ইদানিং কোন চাকরীর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী দিলেই দেখা যায় লক্ষ লক্ষ যুবক আবেদন করার জন্য উঠে পড়ে লেগে থাকে। আর ২০১৫ সালের পর তো চাকরী আরও কঠিন ও প্রতিযোগীতামূলক হয়ে যায়। কারণ ২০১৫ সালের পরে সরকারী চাকরীতে ১০০% এরও বেশি বেতন বৃদ্ধি পায় যা এর আগে কখনও হয় নাই। 

আরো পড়ুন >> চাকরীর জন্য যেসকল দক্ষতা জানতে হবে জেনে নিন।

Ten Skills in 2021
Ten Skills in 2021

বর্তমানে চাকরীর জন্য পড়াশোনার পাশাপাশি আপনাকে দক্ষও হতে হবে। আর এই প্রযুক্তির যুগে প্রযুক্তি যে কতটা প্রয়োজনীয় জিনিস তা ২০২০ সালকে না দেখলে বোঝা যাবে না। কারণ করোনা মহামারির সময়টাতে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যমই ছিল এই প্রযুক্তির তৈরি করা মাধ্যম। যা আজকের পৃথিবীকে অনেকটাই পরিবর্তন করে ফেলেছে। সামনের দিকে চাকরী পেতে গেলে আমাদেরকে অবশ্যই এই প্রযুক্তির দক্ষতাই দক্ষ হতে হবে। ☺


আরো পড়ুন >> প্রযুক্তির যুগে চাকরীর জন্য যেসব দক্ষতার প্রয়োজন পড়বে।

আজকে আমি ১০টি দক্ষতার কথা বলবো যা আপনাকে সামনে আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে আয় করার জন্য এবং সহজেই চাকরী করার জন্য। আর এই ১০টি দক্ষতা আপনাকে একজন ভালো চাকরীজীবি, ভালো উদ্যোক্তা ও ভালো ব্যবসায় বানাতে সহযোগীতা করবে আশা করি। আসুন তাহলে জেনে নিই সেই দক্ষতাগুলো। 


পৃথিবীতে এমন অনেক মানুষ আছে যারা কথা বলেই টাকা আয় করে থাকে। ২০১৯ সালে জো বাইডেন ২০২০ সালের আমেরিকার নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট যিনি তিনি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বা সেমিনারে বক্তব্য দিয়ে অনেক টাকা আয় করেন। আবার আমাদের দেশেও দেখা যায় বিভিন্ন কম্পানিতে বিভিন্ন সেমিনারে অনেকই আমন্ত্রণ জানানো হয় তাদের কর্মীদেরকে কিছু বলার জন্য। আসলে অনেকেই আজকাল ইউটিউবে কথা বলার মাধ্যমে অনেক বেশি আয় করে থাকে। আপনি যদি মানুষের সাথে কথা বলতে পারেন অনেক ভালো তবে আপনি অনেক ভালো করতে পারেন যে কোন পেশায়। বর্তমানে আমরা ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিষয়টা অনেকেই জানি বা ফেইসবুক মার্কেটিং যেটাই বলি না কেন এখানে আসলে একজন সেলার তার কথার মাধ্যমে বায়ারকে আকৃষ্ট করে থাকে। আর বায়ার সেলারের কথার উপর ভিত্তি করে জিনিসপত্র কিনে থাকে যেটা দেখলে বোঝা যাবে পাবলিক স্পিকিং কত বড় একটা বিষয়। 

তাই আপনি যদি আপনার ক্যারিয়ারকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে চান তবে আজকেই আপনি এই দক্ষতা বাড়ানোর জন্য চেষ্টা করুন। কারণ একজন আরেকজনের সাথে কথা বা যোগাযোগ না করলে আত্মরিকতা যেমন বাড়বে না তেমনি বাড়বে না চাকরীর পাওয়া ও আয় করার সম্ভবনাও। মানুষের সাথে কথা বলার দক্ষতা থাকলে আপনি অনেক সহজেই অনেক ভালো আয় করতে পারবেন। 


আরো পড়ুন >> তরুন/তরুনীদের সরকারী চাকরীতে আগ্রহের কারণ কি ?

২. Being Honest Yourself বা নিজেকে সৎ রাখুন 

সততা কত বড় একটা গুন যা বর্তমান পৃথিবীর বড় বড় ব্যবসাকে দেখলেই বোঝা যাবে। সততা আসলে একটা ব্রান্ড আর এই ব্রান্ড আপনাকে অনেক বড় পজিশানে নিয়ে যাবে এক সময়। আমি একটা মাত্র উদাহাণ দেবো তাতেই হয়তো বুঝতে পারবেন যে, সততা কত বড় একটা জিনিস প্রত্যেকটা কাজের জন্য। ২০০০ সালের দিকে বর্তমান পৃথিবীর অন্যতম একজন ধনী ব্যক্তি ইলন মাস্ক মঙ্গল গ্রহে যাওয়ার জন্য নাসাকে বলেছিলেন। কিন্তু তখন নাসা তার কথাতে রাজি হয় নাই। তারপর সেই ইলন মাস্ক নিজেই SpaceX নামে একটা মহাকাশ গবেষণার একটা কম্পানি তৈরি করেন যেটা থেকে পরবর্তীতে নাসা যন্ত্রপাতি কিনতো। কারণ SpaceX ভালো মানের পণ্য অর্থ্যৎ তার পণ্যের গায়ে যা বর্ননা তাই কাজেও থাকতো বিধায় নাসার মত প্রতিষ্ঠান SpaceX নামের ছোট সেই সময়ের কম্পানির জিনিস বা যন্ত্রপাতি কিনতো। 

বর্তমানে আমাদের দেশেও যারা অনেক ধনী তারাও এক সময় তাদের সততা দিয়ে আজকে বিশ্ববিখ্যাত হয়েছেন। আর সততা ছাড়া উপরে উঠা যায় না এটা অনেক বাস্তব ও সত্য কথা। একটা সময় মানুষ টাকাকেই সম্পদ হিসেবে বিবেচনা করতো কিন্তু আজকের দিকে সততাও একটা সম্পদ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। 

৩. Having Confidence বা আত্মবিশ্বাসী হওয়া 

আত্মবিশ্বাস এমন একটা বিশ্বাস যা দেখা যায় না অথচ অনেক উপকারী। একজন আত্মবিশ্বাসী মানুষ সব সময় নিজের কাজকে অনেক বেশি ভালোবাসে এবং কাজেও সফল হয়। আপনাকে আত্মবিশ্বাস হওয়ার জন্য অবশ্যই প্রাকটিস করতে হবে। বর্তমানে ডাক্তাররা অনেক সময় বলে থাকেন যে, একটা শিশুকে ছোট বয়সে থেকেই আত্মবিশ্বাসী হওয়ার জন্য ট্রেইনিং করানো উচিত। কারণ আত্মবিশ্বাস মানুষ প্রত্যেকটা কাজে সফল হয়ে থাকে। আপনি কোন কাজ শুরু করার আগেই যদি সেই কাজটা আপনি পারবেন বলে বিশ্বাস করেন তবে দেখবেন আপনি সত্যি সত্যিই সেই কাজটাতে সফল হয়েছেন। এটাই আসলে আত্মবিশ্বাস যা আপনাকে কোন কাজে সফল হওয়ার দিকে এগিয়ে রাখবে। 

আপনি যখন কোন কথা বলেন তখন আত্মবিশ্বাসের সাথে বলার চেষ্টা করুন। দেখবেন চর্চা করলে একটা সময় আপনি আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন। আপনি আত্মবিশ্বাসের সাথে কোন কাজ করলে, আত্মবিশ্বাসের সাথে কারো সাথে কথা বললে একটা আলাদা বিষয় চলে আসবে। আর আপনি আপনার চাকরীতে, ব্যবসায়ে অনেক ভালো করতে পারবেন। অনেক সময় কম্পানি কর্মচারীদের আত্মবিশ্বাসী করানোর জন্য ট্রেইনিং করানো হয় তাতে করে তাদের কর্মদক্ষতা বেড়ে যায় অনেকাংশ। তাই আজকে থেকেই কিভাবে আত্মবিশ্বাসী হওয়া যায় সেই বিষয়টার দিকে নজর দেবেন। 


আরো পড়ুন >> প্রেসার মাপার যন্ত্র দিয়ে সঠিকভাবে প্রেসার মাপার নিয়ম।

৪. Listening বা শোনা 

আমরা কোন কিছু পড়ে যেমন মুখস্ত করি তেমনি আবার কোন কিছু দেখেও তা মনে রাখতে পারি বা আমরা কোন কিছু শুনেও তা মনে রাখতে পারি। পৃথিবীতে এমন অনেক হাফেজে কোরআন আছে যারা দেখতে পায় না অথচ হাফেজ। তারা আসলে শোনার মাধ্যমেই মুখস্থ করেছে যেটা সত্যিই অনেক অবাক করার মতই। তাই আপনিও আজকে থেকে শোনার মত যোগ্যতা অর্জন করার চেষ্টা করুন। কারণ আপনি তখনই ভালো বক্তা বা চাকরীজীবি হতে পারবেন যখন আপনি আপনার বসের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনবেন বা কারো কথা অনেক বেশি মনোযোগ দিয়ে শুনবেন। আপনি বক্তাকে প্রশ্নও করতে পারবেন না যদি আপনি মনোযোগ সহকারে কোন কিছু না শোনেন। 

পৃথিবীর বড় বড় নেতারা অনেক কম কথা বলতো আর অনেক ভালো শ্রোতা ছিল। আসলে আমাদেরকেও এই গুনটা অর্জণ করতে হবে। হ্যা কথা বলার বিষয় যদি থাকে বা আপনাকে যদি কথা বলতে বলা হয় তবে আপনি অবশ্যই বলবেন কিন্তু যখন অন্য কেউ কথা বলে তখন তা মনোযোগ সহকারে তা শুনবেন। কারণ কথা বলা যেমন একটা ভালো দক্ষতা তেমনি কারো কথা মনোযোগ সহকারে শোনাটাও একটা ভালো দক্ষতা। 


আরো পড়ুন >> সিদ্ধান্তহীনতার কারণ ও এর প্রতিকার জানতে পড়ুন আর্টিকেলটি।


৫. Managing Your Time বা সময়ের মূল্যয়ন করা 

কথাই বলে যার সময় জ্ঞান নাই তার কোন কিছুই নাই। আমরা প্রবাদ বাক্য পড়েছি যে, সময় ও নদীর স্রোত কারো জন্য অপেক্ষা করে না। আসলেও বিষয়টা তাই আপনি যদি কোন কাজ করার জন্য একটা নির্দিষ্ট সময় ঠিক করেন তবে চেষ্টা করবেন সেই সময়টা অনুসরণ করার বা মেনে চলার। আজকের দিকে যারা পৃথিবীকে নেতৃত্ব দিচ্ছে অর্থ্যৎ আমি যদি জাপানের মত একটা দেশের কথা বলি তবে তাদের সময় সম্পর্কে আপনাকে কিছু সময় ভাবতে শেখাবে। যেমন, জাপানের ট্রেনের সময় এতটাই সঠিক যে একজন ব্যক্তি সংবাদ মাধ্যমে বলেছেন যে, তিনি ২০ বছর হলো ট্রেনে করে অফিসে যান একটা দিনও তিনি ট্রেন দেরিতে আসে নাই। 

বরং এমন দেখা যায় যে, কোন দেশে ট্রেন ১ মিনিট দেরিতে আসলে সেই দিনের সংবাদের ব্রেকিং নিউজ হয়ে যায় সেটি। আসলে উন্নত দেশগুলো তাদের সময়টাকে কাজে লাগানোর মত ভালো কাজ করার কারণেই উন্নত হয়েছে। ফেইসবুকে নোটিফিকেশান চেক করতে বসলে ঘন্টার পর ঘন্টা পার হয়ে যায় বুঝতেই পারি না। তাই ভবিষ্যতে কোন কিছু করতে হলে আপনাকে অবশ্যই সময় জ্ঞান ভালো রাখতে হবে। 


আরো পড়ুন >> বাংলায় সঠিকভাবে আর্টিকেল লিখার নিয়মগুলো জানুন।

৬. Stop Complaining বা অভিযোগ বন্ধ করা 

এই গুণটা আমাদের সবার মধ্যেই কমবেশি আছে। ছোট থাকতেই স্কুলে বসে একজন আরেকজনের নামে শিক্ষকের কাছে বিচার দেওয়া থেকে শুরু করে কর্মক্ষেত্রে বসের কাছে আরেকজন কর্মীর বা কলিগের নামে বিচার দেওয়ার মত কাজে আমরা অভ্যস্ত। আসলে অভিযোগ কোন সমস্যার সমাধান হতে পারে না। আপনি কোন কাজে করবেন তা যদি আরেকজনের আশায় বসে থাকেন তবে আপনি নিজেও সময় লস করবেন এবং নিজের কর্মদক্ষতাটাও হারাবেন। 

দেশের বর্তমান অবস্থা এমন কেন, এটা কিভাবে হলো, অসব এখানে আসলো কিভাবে এরকম হাজারো অভিযোগ আসে আমাদের মনে। আর এই অভিযোগ গুলো করার আগে যদি আমরা একটু গভীরভাবে চিন্তা করি তবে নিজেরাই বুঝতে পারবো যে, আসলে আমাদের অভিযোগ করার কারণে আমরা নিজেরাই নিজেদের ক্ষতি করছি। আমাদের উচিত অভিযোগ না করে তার সমাধান খুজে বের করা। তাহলেই আমাদের দক্ষতা বেড়ে যাবে। 


আরো পড়ুন >> টাকা ছাড়া অনলাইনে আয় করার উপায়গুলো জানুন।

৭. Staying Present in the Moment বা বর্তমানকে মূল্যায়ন করা 

আমরা অনেকেই অতীতের কোন বিষয় যা কখনই ভুলে যেতে পারি না বা ভুলে যেতে চায় না। আসলে অতীতের কোন বিষয় পরিবর্তন করা সম্ভব না আর অতীতকে ফিরেও পাওয়াটাও সম্ভব না। আর তাই আপনি বর্তমানে যেভাবে আছেন যা করছেন সেটার প্রতি অনেক বেশি গুরুত্ব দেবেন এটাই স্বাভাবিক। অতীতের কোন কাজের শিক্ষা নিয়ে আপনি বর্তমানকে মূল্যায়ন করার চেষ্টা করবেন। 

বর্তমানকে সঠিকভাবে কাজে লাগোন এবং বর্তমানে কোন কোন দক্ষতা অর্জন করলে ভবিষ্যতে আপনি ভালো করতে পারবেন সেই সব বিষয়গুলো কাজ করার চেষ্টা করুন। আজকে যা বর্তমান কালকে তা অতীত তাই আজকে কাজের সময়টাতে আজকের কাজেরই আলোচনা করুন তাহলে আগামীকালকে আজকেরটা নিয়ে আলোচনা করতে হবে। কারণ আমরা অনেক সময় অতীতের কোন ভুলকে ঠিক করতে গিয়ে বর্তমানের করা কাজটার গুরুত্ব দেই না যেটা অনেক খারাপ। তাই বর্তমানকে মূল্যায়ন করার চেষ্টা করা উচিত সবার যা হতে পারে আপনাদের জন্য অনেক বড় একটা দক্ষতা। 


আরো পড়ুন >> নতুনদের ব্যবসা করার জন্য যেসব দক্ষতার প্রয়োজন।

৮. Be Consistent বা ধারাবাহিকতা ধরে রাখা 

আমি আমার একটা উদহারণ দিতে পারি এই পয়েন্টটা সম্পর্কে। কিছুদিন আগে আমার মনে হয়েছে যে, আমার এই কাজটা করা উচিত আর যথারীতি আমি সেই কাজটা তার পরদিন থেকে শুরু করেও দিয়েছিলাম কিন্তু হঠাৎ সেটা আর নিয়মিত করতে পারি নাই। যার ফলে আমার সেই কাজটা আর এখন করা হচ্ছে না। আসলে কোন কাজের ধারাবাহিকতা ধরে রাখা হয় না আমাদের। এই সমস্যাটা যদি শতকরা হিসেবে বলা যায় তবে ৮৫% মানুষ আমরা ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারি না। 

কোন কাজের ধারাবাহিকতা না থাকলে সেই কাজে সফলতা আসে না। প্রত্যেকটা কাজের একটা নিয়ম আছে আর সেটা আপডেটের মত আপডেট করতে হবে ধারাবাহিক ভাবে। একটা গাছকে ছোট থেকে বড় করার জন্য যেমন ব্যয় করতে হয় সময় তেমনি ধারাবাহিক পরিচর্যাও অনেক বেশি প্রয়োজন। তাই আমরা যারা তরুন আছি তাদের জন্য অনেক ভালো একটা বিষয় বা দক্ষতা হলো কোন কাজের ধারাবাহিকতা ধরে রাখা। 


আরো পড়ুন >> অনলাইনে আয় করার সহজ একটি উপায় জানুন আর্টিকেলটিতে।


এই পয়েন্টা আসলে একটা জটিল। সহজ করে যদি আমি বলি তবে এতটুকু বলা যেতে পারে যে, আপনি একটা কাজ অনেক বেশি ভালো বোঝেন বা পারেন আর আপনি সেই কাজটা না করে অন্য একটা কাজ করছেন। আসলে মানুষ তার পছন্দের কাজে কখনও বিরক্ত হয় না। তাই বাইরের দেশে কোন কাজে দক্ষতা কার বেশি সেটা সেই কাজে কার আগ্রহটা বেশি সেই দিকটা বিবেচনা করা হয়ে থাকে। পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো শিক্ষাব্যবস্থা বলা হয় ফিনল্যান্ডের শিক্ষাব্যবস্থাকে। 

বর্তমানে আমেরিকার মত দেশ যা ফলো করার চেষ্টা করছে। আর সেই শিক্ষাব্যবস্থার মধ্যে অন্যতম একটা বিষয় হলো আপনি আপনার পছন্দমত বিষয়ে পড়াশোনা থেকে শুরু করে কাজ করতে পারবেন। একটা ছাত্র রান্না করতে অনেক পছন্দ করে তাকে সেই প্রতিষ্ঠানের ভর্তি করানো হয় যেখানে সে তার পছন্দের কাজটা শিখতে পারবে আরও ভালো করে। আর একটা সময় দেখা যায় যে, সেই ছাত্রটাই একটা সময় সেই দেশের পৃষ্টিকর খাবার সরবরাহ করছে। অর্থ্যৎ যে যেই কাজে দক্ষতা তাতেই সেই কাজে লাগানোর চেষ্টা করা উচিত। 


আরো পড়ুন >> ২০২১ সালের সেরা দক্ষতাগুলো জানতে আর্টিকেলটি পড়ুন।


১০. Digital Marketing Skills বা ডিজিটাল মার্কেটিং এর দক্ষতা

বর্তমান সময়ে অনেক জনপ্রিয় একটা বিষয় হলো ডিজিটাল মার্কেটিং বা অনলাইন মার্কেটিং। করোনার সময়টাতে বোঝা গেছে মানুষ প্রযুক্তির উপর কতটা নির্ভরশীল। আর এই সময়টাতে অনেক বড় বড় কম্পানি যেমন লসের সামনে পড়েছে তেমনি অনেক ছোট ছোট ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান তৈরি হয়েছে যারা অনলাইনে ডিজিটাল মার্কেটিং করার মাধ্যমে অনেক বড় হয়েছে। তাই আগামী দিনে আপনি কোন চাকরীতে যুক্ত হওয়ার আগে আপনাকে অবশ্যই অনলাইন সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখতে হবে। 

বর্তমানে কোন কাজ অনলাইনে অনেক ভালো মত করার জন্য অনেক প্রতিষ্টান কাজ করে যাচ্ছে। আর অনলাইনে ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনি যেমন কোন কম্পানির পণ্য বিক্রি করে আয় করতে পারবেন তেমনি আপনি নিজের সেবাও বিক্রি করতে পারেন এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে। 


আরো পড়ুন >> অ্যাফিলিয়েটিং মার্কেটিং করে কিভাবে আয় করবেন জানুন।

আমি উপরে ২০২১ সালে যেন আপনি প্রতিযোগীতাই টিকে থাকতে পারেন সেই জন্য ১০টি গুরুত্বপূর্ণ দক্ষতার কথা বলেছি যেটা আপনি অর্জণ করতে পারলে একটা সময় দেখা যাবে আপনি নিজেই অনেক ভালো আয় করতে পারছেন আর সেটা কোন চাকরী করা ছাড়াই। একটা সময় ধারণা করার হতো তথ্যের অনেক দাম হবে আর আজকে দিনে এসে বিষয়টা অনেক সহজেই বুঝতে পারা যাচ্ছে। আগামী দিনে তথ্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। তাই আগে থাকতেই যদি আমরা উপরের দক্ষতাগুলো অর্জন করার চেষ্টা করি তবে দেখা যাবে যে, আমরা অনেক ভালো চাকরী বা ব্যবসা করতে পারবে। আশা করি আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনি আগামীতে কোন কোন দক্ষতা আমাদেরকে অনেক ভালো আয়ের সন্ধান দিতে পারবে তা জানতে পেরেছেন। আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার মূল্যবান মতামত জানাবেন আশা করি।


আরো পড়ুন >> বাংলাদেশ কি আগামীর চায়না হচ্ছে জানতে আর্টিকেলটি পড়ুন।


আরো পড়ুন >> দ্রুত ঘুমানোর উপায়গুলো জানার জন্য আর্টিকেলটি পড়ুন।

Leave a Comment