বর্তমানে ব্লগিং বা ওয়েবসাইটের আসল উদ্দেশ্য

বর্তমানে ব্লগিং বা ওয়েবসাইটের আসল উদ্দেশ্য

ব্লগিং বা ওয়েবসাইটের সম্পর্কে অনেক আগে থেকেই মানুষের কৌতুহলের শেষ নেই। বর্তমানে অনলাইনে আয় করার অন্যতম একটি মাধ্যম হিসেবে পরিচিত এই সেক্টরটি। ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে আর্টিকেলটি পড়ুন।

 

গুগল অ্যাডসেন্স থেকে কেমন আয় করা যায় প্রতি মাসে ? গুগল অ্যাডসেন্স কিভাবে আমাদের টাকা দিয়ে থাকে। গুগল অ্যাডসেন্স আসলে আমাদেরকে কেন টাকা দেবে ? অনলাইন আয় করার ক্ষেত্রে গুগল অ্যাডসেন্স এর ভূমিকা কতটুকু গ্রহনযোগ্য ? 

  

ব্লগিং বা ওয়েবসাইটের আসল উদ্দেশ্য কি গুগল অ্যাডসেন্স ?

  

ব্লগিং বা ওয়েবসাইটের আসল উদ্দেশ্য কি গুগল অ্যাডসেন্স ?

 

 

ব্লগিং কি ও কেন প্রশ্নের উত্তর আপনারা গুগল থেকেই পেতে পারবেন। আমরা আসলে বর্তমানে একটা সাইট তৈরি করছি এবং সেটাতে গুগল অ্যাডসেন্স আসছে তারপর সেটা সেল করে দিচ্ছি। 

 

আবারও সাইট তৈরি করছি আবারও সেল করে দিচ্ছি। অথচ আপনার নিয়মিত বানাচ্ছেন আর সেল করছেন। এমন না করে যদি আপনার নিজের একটা সাইট থাকতো আর সেটাতে আপনি নিয়মিত লিখতেন। 

 

সেই ডোমেইনটার বয়স যদি ৬ মাস ২ বছর হতো তবে অবশ্যই আপনি সেই সাইট থেকেও প্রতি মাসে কি না কিছু আয় করতে পারতেন। কারণ একটা ডোমেইন যত পুরানো হবে আর যত বেশি তথ্য ইনডেক্স থাকতে সে তত বেশি Rank করাতে সাহায্য করবে। 

 

 

গ্রুপের অনেকেই এই কাজটা করেন অনেক সময় দাম অনেক ভালো পাওয়া যায় আবার অনেক সময় দাম অনেকটাই খারাপ পাওয়া যায়। আসলে আমি মনে করি যে যেটা করেন এইটাকে প্রফেশান হিসেবে নেন। তাহলে দেখবেন এখান থেকেও এক সময় না এক সময় আয় করা সম্ভব। 

 

 

কিছু পরামর্শ 

(+) আপনার সাইট বাই-সেল করেন বা সেল করে দেন ঠিক আছে একটা বা দুইটা সাইট নিজের জন্য রেখে দেন। 

(+) সাইটের বয়স ৬ মাস বা ১ বছর যদি হয় আর কোন ট্রাফিক না আসে তাহলে আপনি পোস্ট করেন সমস্যা জানার জন্য। অনেকেই যারা জানেন ‍উত্তর করবেন। 

(+) গুগল অ্যাডসেন্স থেকে যেন আপনি নিজে করতে পারেন সেই সকল তথ্য জানুন। 

(+) পেইড ট্রাফিক সোর্স থেকে আপনি চেক করে দেখতে পারেন তকটুকু আপনার সুবিধা হবে Rank করানোর জন্য। 

(+) অবশ্যই আপনার সাইটে যথেষ্ট কনটেন্ট দিতে হবে বা থাকতে হবে। 

(+) টপ লেবেল ডোমেইন ব্যবহার করবেন এবং হোস্টিং হলে ভালো কম্পানির হোস্টিং রাখবেন। 

 

 

গুগল অ্যাডসেন্স নয় ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য আপনাকে স্থির করতে হবে আরও সূদূরপ্রসারি পরিকল্পনা। কারণ আমরা অনেক সময় গুগল অ্যাডসেন্স কে লক্ষ্য করে কাজ শরু করার কারণে আমাদের দেশের পারমানেন্ট ক্যারিয়ারটা তৈরি হচ্ছে না বা হলেও সেটার সংখ্যা অনেক কম। 

 

 

গুগল অ্যাডসেন্স এর আসল উদ্দেশ্য 

(ক) আপনার সাইটটার তথ্য সবার কাছে পৌছে দেওয়া। 

(খ) আপনার ভেতরের সুপ্ত প্রতিভার সকলের সামনে উম্মোচন করে নেওয়া। 

(গ) সবার কাছে নিজের একটা অবস্থান তৈরি করে নেওয়া। 

(ঘ) গুগল বা অনলাইন থেকে আয় করার একটা মাধ্যম তৈরি হওয়া। 

 

 

ব্লগিং ও ওয়েবসাইট তৈরি করার আসল উদ্দেশ্য

যদিও ধারণাগুলো আমার নিজের ব্যক্তিগত মনে হয় বিধায় শেয়ার করলাম। কারণ আমাদেরকে আরও গবেষণালব্ধ ফলাফল তৈরি করতে হবে। 

 

 

(ক) তথ্য জানা থাকলে তা শেয়ার করার মাধ্যম তৈরি করা। 

(খ) অনলাইনে আয় করার একটা সহজ উপায় বের করতে পারা। 

(গ) নিয়মিত কাজ না পেলেও কিছু কাজ অনেক মনোযোগ দিয়ে করার চেষ্টা করে নেওয়া। 

(ঘ) অনেক সময় আছে নিজেদের প্রতিষ্ঠানের তথ্য ওয়েবসাইটে রাখা হয়। এই কারণেও অনেকেই আছে তারা ওয়েবসাইট তৈরি করে থাকেন। 

 

 

বি. দ্র. যেহেতু প্যাসিফ আর্নিং সোর্স সেহেতু শুরুর আয় আসতে দেরি হলেও আসতে থাকলে তা আসতেই থাকবে। 

 

 

ব্লগ সম্পর্কিত আর্টিকেলসমূহ নিচে দেওয়া আছে। 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

1 thought on “বর্তমানে ব্লগিং বা ওয়েবসাইটের আসল উদ্দেশ্য”

Leave a Comment