অনলাইনে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং এর ধাপগুলো

অনলাইনে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং এর ধাপগুলো

অনলাইনে আয় করার জন্য অনেকগুলো পদ্ধতি আছে। তার মধ্যে অন্যতম হলো ফ্রিল্যান্সি করে আয় করা। এছাড়াও গুগল অ্যাডসেন্স নিয়ে কাজ করা, অ্যাফিলিয়েটিং মার্কেটিং করা, ডিজিটাল মার্কের্টিং করাসহ আর বেশ কিছু পদ্ধতি আছে। অনলােইনে আয় করার জন্য আমাদের অনেক বেশি ধৈর্য্যশীল হতে হবে। 
 
 
 
আজকের আর্টিকেলে আপনাদেরকে দেখানো হবে, ফ্রিন্যান্সি কাজ শুরুর আগের আপনি বেশ কিছু বিষয় জেনে আসতে হবে। সেই সকল বিষয়গুলোই থাকবে আজকের আর্টিকেলে। 
 
 
 
অনলাইনে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং এ ধাপগুলো

 

 

ফ্রিল্যান্সিং এর ৬টি ধাপ

 
 
৬টি ধাপ আপনি যদি ঠিকমত পূরণ করতে পারেন, তাহলে আপনি অনলাইনে আয় করার জন্য ফিল্যান্সিং এর বিষয়গুলো সহজেই বুঝতে পারবেন। 
 
 
 
নিচে ধাপগুলোসহ কিছু সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দেওয়া হলো। 
 
 
প্রথম ধাপঃ- যে কোনো স্কিলে দক্ষ হতে হবে, যা মার্কেটপ্লেসে বিদ্যামান
 
 
দক্ষতা ছাড়া আপনি অনলাইনে আয় করতে পারবেন না। আর ফ্রিল্যান্সিং কাজ দেওয়ার আগে আপনাকে অবশ্যই দক্ষতা অর্জন করতে হবে। দক্ষতা ছাড়া আপনাকে ফ্রিল্যান্সি এর কাজ কেউ দেবে না। 
 
 
 
Up-Work, Fiver, Freelancer .com সহ আর যেসব মার্কেটপ্লেস আছে সেগুলোতে কি কি ধরনের কাজ আছে, তা জেনে সেই সকল কাজে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। 
 
 
 
২য় ধাপঃ- সেই স্কিলের উপর একটি পোর্টভুলিও বানাতে হবে এবং প্রতি সেক্টরে থাকা ফ্রিল্যান্সাররা কি কাজ করতে হয় তা জানতে হবে।
 
 
 
Personal Branding is Very important in Freelancing Marketplace. আসলেই তাই, আপনি যদি নিজেকে পরিচয় না করিয়ে দেন মার্কেটপ্লেসগুলোতে তাহলে আপনাকে তো কেউ চিনবেই না। আর অনলাইনে না চিনলে কাজ পাওয়াটা বেশ কষ্টকর। 
 
 
 
Portfolio আসলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একজন ফ্রিল্যান্সার এর জন্য। কারণ আপনার হয়তো নিজেকে সবার কাছে পরিচয় করাতে পারবেন না। কিন্তু আপনার একটা অনলাইনে পোর্টফুলিও থাকে তাহলে সহজেই সকলের সামনে নিজেকে পরিচয় করিয়ে দিতে পারবেন। 
 
 
 
 
 
৩য় ধাপঃ- প্রফাইল রেডি করলাম কিন্তু তা ধরে রাখার জন্য যথেষ্ট প্লান করতে হবে। 
 
 
আপনি অনেক কাজ জানেন কিন্তু করেন না কোন কাজ। তাহলে আপনি এক সময় আপনার কাজে দক্ষতা যেমন হারাবেন তেমনি হারাবেন মার্কেটপ্লেসের বিশ্বস্ততা। 
 
 
 
একজন কাস্টোমারের কাছে বিশ্বস্ততা অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই প্রফাইল যে রকমই বানান না কেন, আপনি সেটাতে অবশ্যই দক্ষতা রাখার চেষ্টা করবেন বা দক্ষ হবেন। 
 

অনলাইনে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং এর ধাপগুলো

 
 
৪র্থ ধাপঃ- অনলাইনে পেমেন্ট ম্যাথোড নিয়ে। শুরুর দিক থেকেই বলা হচ্ছিল তারা তাদের সাথে যুক্ত। তাই পেমেন্ট ম্যথোড টা অনেক জরুরী বিষয়। 
 
 
আপনি সবই করলেন কিন্তু টাকা নিজের হাতে নিয়ে আসবেন কিভাবে তা জানেন না। বিষয়টা আসলে অনেক জরুরী। কারণ আপনি অনলাইনের কাজ করলে বিভিন্ন ভাবে বাইরের ক্লায়েন্ট বা বায়ার হলে আপনাকে পেমেন্ট করবে গ্লোবাল প্রচলিত ব্যাংকগুলোতে। 
 
 
এখন দেখার বিষয় আপনি এই দিকটা কিভাবে মানিয়ে নিবে। যেমন, আপনি যদি নতুন হোন তাহলে আপাতত লোকাল মার্কেটে কাজ করেন। 
 
 
 
আবার আপনি যদি দক্ষ হন, তাহলে অবশ্যই আপনি আপনার বেটার অপশান করে করে সেটাতে আত্মনিয়োগ করতে পারেন। 
 
 
 
৫ম ধাপঃ- শুরুতে লো কমপিটিশান কী-ওয়ার্ড বেশি থাকবে। সেক্ষেত্রে আপনি সপ্তাহে নির্দিষ্ট পরিমাণ দেখে দেখে অ্যাপ্লাই করবেন। অর্থ্যৎ লো কমপিটিশানের কারণে আমি অডার করছি। 
 
 
 
সাধারণত শুরুর দিকে বেশিভাগই কাজ ও টাকা আয় করতে আসে। কেউ যদি পুরো সিস্টেমটা না জানলে হেল্প করবে না। কোন বিষয় সম্পর্কে আগে আপনাকে জানতে হবে তারপর আপনি এখানে অ্যাপ্লাই করতে পারবেন। 
 
 
 
কিছু কাজ আছে যে গুলো তারা হয়তো প্রতিযোগীতা কম। যেমন আপনি যদি শিক্ষা নিয়ে কাজ শুরু করেন তাহলে দেখবেন এই নিয়ে অনেকেই কাজ করছে তবে প্রতিযোগীতা গতবারের থেকে কম। 
 
 
 
কিছু কাজ আছে সহজ কিন্তু আপনাকেই নির্বাচন করতে হবে কোনটা সহজ আর কোনটার প্রতিযোগীতা মার্কেটে কম। সেরকম দেখে আপনি সেই কাজে আগ্রহী হবে তাহলে হয়তো আপনি সহজেই কাজ পাবেন। 
 
 
 
 
 
 
৬ষ্ঠ ধাপঃ- যদি কাজ না পান, তাহলে কেন কাজ পাচ্ছেন না, তা খুজে বের করুন। ঠিকমত মার্কেটিং করতে পারলে তো এমন সমস্যা হওয়ারও কথা না। 
 
 
অনেক সময় আছে অনলাইনে একটিভ না থাকার কারণে বায়াররা কাজ দিতে চায় না। আপনি যেই মার্কেটপ্লেসে কাজ করবেন বা যেই মার্কেটপ্লেস থেকে কাজ নিবেন। 
 
 
অবশ্যই আপনাকে সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে ভালো মত জানতে হবে। তাছাড়া যখন আপনি এই সেক্টর থেকে প্রতিযোগীতা করতে পারবেন না, ঠিক তখনই আপনি হতাশ হতে পারেন। 
 
 
তাই আমি বলবো আপনি যদি কাজ না পান তাহলে নিজেকে আরও বেশি কিছু ভাবে দক্ষতা আনা যায় কিনা জেনে নিতে পারেন। শেখার তো আসলে শেষ নাই। তারপরেও কিছু বিষয় আপনাকে জানতেই হবে। 
 
 
 
 
 
আশা করবো আর্টিকেলটি সবার কাছে ভালো লেগেছে। আপনার মতামত অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। 

1 thought on “অনলাইনে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং এর ধাপগুলো”

Leave a Comment